Breaking News

মস্তিষ্কের দক্ষতা বাড়ায় এই ৬ টি খাবার







  • শারীরিক ও মানসিকভাবে সুস্থ থাকার জন্য ভালো খাবার খাওয়া জরুরী। হৃদপিণ্ড, ফুসফুস এবং পেশীর মত মস্তিষ্কেরও পুষ্টি প্রয়োজন হয়। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং ওমেগা ৩ ফ্যাটি এসিড সমৃদ্ধ খাবার মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য এবং স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি করতে পারে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু নির্দিষ্টভাবে কোন খাবারগুলো আমাদের মস্তিষ্কের গ্রে ম্যাটারকে স্বাস্থ্যবান ও সুখি রাখতে সাহায্য করে সেটা জানা প্রয়োজন। বিভিন্ন গবেষণার ভিত্তিতে আমাদের  মস্তিষ্কের গ্রে ম্যাটারের উন্নতিতে সাহায্য করে এমন ৬ টি খাবারের বিষয়ে জানবো আজকের ফিচারে।

    ১। আখরোট

    আখরোট দেখতে অনেকটা মস্তিষ্কের মত। যেন এর আকারের মাধ্যমে প্রকৃতিই আমাদের বোঝাতে চায় যে, আখরোট মস্তিষ্কের জন্য ভালো। ২০০৯ সালে নিউট্রিশন নামক সাময়িকীতে প্রকাশিত এক গবেষণায় জানা যায় যে, বাদাম বৃদ্ধ ইঁদুরের বয়সবৃদ্ধির লক্ষণ খুব সামান্য পরিমাণে প্রায় ২% কমিয়ে দিতে পারে। এছাড়াও মস্তিষ্কের কাজ করার ক্ষমতা এবং তথ্য বিন্যাসের ক্ষমতার উপর ও প্রভাব ফেলে এই বাদামটি। আখরোটে উচ্চ মাত্রার অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে বলে কিছু গবেষকের মতে, আমাদের শরীরের ফ্রি র‍্যাডিকেলের দ্বারা মস্তিষ্কের কোষের ডিএনএ এর যে ক্ষতি হয় তার বিরুদ্ধে লড়াই করতে সাহায্য করে এই অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট।

    ২। গাজর

    গাজর চোখের জন্য ভালো এটা আমরা সবাই জানি, কিন্তু এটি মস্তিষ্কের জন্যও উপকারী এটা অনেকেই জানি না। ২০১০ সালের নিউট্রিশন নামক সাময়িকীতে প্রকাশিত গবেষণা মতে,গাজরে উচ্চমাত্রার লুটিওলিন থাকে, যা বয়স সংক্রান্ত স্মৃতিক্ষয় এবং মস্তিষ্কের ইনফ্লামেশন কমাতে পারে। গাজর ছাড়াও অলিভ অয়েল, মরিচ এবং সেলেরিতেও উচ্চ মাত্রার লুটিওলিন থাকে।

    ৩। বেরি ধরণের ফল

    বিভিন্ন গবেষণা অনুযায়ী, ভিটামিন সমৃদ্ধ বেরি বা জাম জাতীয় ফল আপনার ডায়েটে যুক্ত করাটা আপনার স্মৃতিশক্তির উন্নতির জন্য ভালো। ২০০৯ সালের নিউট্রিশন নামক জার্নালের রিপোর্ট অনুযায়ী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ স্ট্রবেরি এবং ব্লুবেরির মত ফল কোষের বয়স সংক্রান্ত স্ট্রেস কমাতে পারে এবং মস্তিষ্কের সংকেত পাঠানোর ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে পারে।

    ৪। মাছ

    সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখানো হয়েছে যে, ফিশ সাপ্লিমেন্ট গ্রহণ করা আলঝেইমার্স রোগীদের স্মৃতি কমে যাওয়া কমাতে সাহায্য করে না। তবে অন্য একটি গবেষণায় দেখানো হয়েছে যে, ওমেগা ৩ ফ্যাটি এসিড সমৃদ্ধ মাছ খাওয়া বয়সের সাথে সাথে আসা মস্তিষ্কের দক্ষতা কমে যাওয়ার প্রক্রিয়াকে ধীর করে। ২০১০ সালের নিউরোলজি নামক জার্নালে প্রকাশিত গবেষণা মতে আলঝেইমার্স রোগের বিরুদ্ধে সুরক্ষা দিতে সাহায্য করে ভিটামিন বি ১২ যা মাছে অনেক বেশি পরিমাণে থাকে।

    ৫। চা ও কফি

    চা ও কফি আপনাকে সজাগ থাকতে সাহায্য করা ছাড়াও আলঝেইমার্স রোগ প্রতিরোধেও সাহায্য করে এবং মস্তিষ্কের দক্ষতার উন্নতি ঘটায়। মস্তিষ্কের উপর চায়ের সুরক্ষাকারী প্রভাব দেখা যায়। যারা চা পান করেন তারা স্মৃতির পরীক্ষা এবং তথ্য প্রক্রিয়াকরণের ক্ষেত্রে ভালো করেন যারা চা পান করেন না তাদের তুলনায়। নিউট্রিশন, হেলথ এন্ড এজিং নামক জার্নালে গবেষণাটি প্রকাশিত হয় ২০১০ সালে। এতে ৫৫ বছর বয়সের এবং এর চেয়ে বেশি বয়সের ৭১৬ জন চীনা নাগরিক অংশগ্রহণ করে।

    ৬। পালংশাক

    আপনার মা সবসময় শাকসবজি খাওয়ার কথা বলেন, যা হয়তো আপনার পছন্দ নয় কিন্তু এটি বিজ্ঞান দ্বারাও সমর্থিত। সবুজ শাকসবজি ভিটামিন সি এবং ই তে সমৃদ্ধ যা চিন্তার, পড়ার, শোনার, মনে রাখার এবং মনোযোগ দেয়ার ক্ষমতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। জেরন্টোলজি নামক জার্নালের একটি গবেষণা অনুযায়ী, ভিটামিন ই মস্তিষ্কের ডোপামিনের নিঃসরণ বৃদ্ধি করে। এই আনন্দ সৃষ্টিকারী রাসায়নিকটি মস্তিষ্কের বিভিন্ন অংশে তথ্যের প্রবাহকে নিয়ন্ত্রণ করে।

    মস্তিষ্কের স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটাতে এবং জ্ঞানীয় দক্ষতা কমে যাওয়ার গতি ধীর করতে সবুজ শাকসবজি, জাম জাতীয় ফল, বাদাম এবং মাছ খান।

    সূত্র: লাইভ সায়েন্স