Breaking News

বৈশ্বিক উদ্ভাবনী সূচকে তিন ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ




  • প্রযুক্তিগত উদ্ভাবন ও সৃজনশীলতায় তিন ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ। বৈশ্বিক উদ্ভাবনী সূচকে গতবার ১২৮টি দেশের মধ্যে ১১৭ তে অবস্থান করলেও বর্তমানে ১২৭টি দেশের মধ্যে ১১৪ তে রয়েছে বাংলাদেশ।

    প্রতিবছর বিশ্বের ১৩০টি দেশের বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে শিক্ষার মান, বিজ্ঞানভিত্তিক প্রকাশনা ও আন্তর্জাতিক পেটেন্ট আবেদনের সংখ্যার উপর বিবেচনা করে এই সূচক তৈরি করা হয়। এই প্রতিবেদন সংশ্লিষ্ট দেশের অর্থনীতি কতটা শক্তিশালী সেটা নির্দেশ করে এবং সেই বিবেচনায় দেশটিকে তালিকায় স্থান দেওয়া হয়।

    ২০১৫ সালে ১৪১টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১২৯তম। উদ্ভাবনে একটি দেশের সক্ষমতা ও সাফল্যের ওপর ভিত্তি করে এ সূচক তৈরি করা হয়। এতে ২০১৫ সালে বাংলাদেশের প্রাপ্ত স্কোর ছিল ২৩ দশমিক সাত পয়েন্ট। ২০১৬ সালে তা কমে হয় ২২ দশমিক ৯ পয়েন্ট। এবার তা আবার বেড়ে ২৩ দশমিক সাত পয়েন্ট হয়েছে।

    বাংলাদেশের প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে ভালো অবস্থান ভারতের। দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে শীর্ষ অবস্থানে এসেছে দেশটি। গতবারের চেয়ে ছয় ধাপ এগিয়ে এবারে ৬০তম অবস্থান ভারতের। শ্রীলঙ্কা রয়েছে ৯০তম স্থানে। নেপাল ১০৯ ও পাকিস্তান ১১৩তম অবস্থানে।

    এবারে শীর্ষ স্থান ধরে রাখার মধ্য দিয়ে টানা সাতবার বৈশ্বিক উদ্ভাবনী সূচকে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছ সুইজারল্যান্ড। বিশ্বের শীর্ষ ২৫টি দেশের মধ্যে ২৪টি উন্নত রাষ্ট্র। বৈশ্বিক উদ্ভাবন সূচক প্রকাশ করে যৌথভাবে কর্নেল ইউনিভার্সিটি, ইনসিড, ওয়ার্ল্ড ইন্টেলেকচুয়াল প্রোপার্টি অর্গানাইজেশন।